রাজশাহীতে নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজশাহীতে নতুন বছরের প্রথম দিনেই স্কুলে স্কুলে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে অন্যান্য বছরের মতো বই উৎসব না হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্রেণিকক্ষেই এ বই বিতরণ কার্যক্রম করা হয়েছে।

এই মহামারীকালেও নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত রাজশাহীর শিক্ষার্থীরা। তাছাড়া স্কুলে দীর্ঘ দিন পর সহপাঠীদের দেখা পেয়ে আনন্দিত তারা।

আজ শুক্রবার ছুটির দিনেও স্কুলগুলোতে বই বিতরণ করা হয়। রাজশাহী সরকারি পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করছেন শিক্ষকরা। স্কুলের শিক্ষার্থী সানজিদা বলে, করোনার এই সময়ে নতুন বই পাবো তা ভাবতেই পারিনি। স্কুলে এসে অনেক দিন পরে বন্ধুদের সাথে দেখা হয়েছে। সেই সাথে নতুন বই পেয়েছি। অনেক ভালো লাগছে।

স্কুলের আরেক শিক্ষার্থী নিলুফার ইয়াসমিন বলে, করোনা মহামারিতে আমরা দীর্ঘ সময় বাসায় বন্দি ছিলাম। শিক্ষক ও স্কুলের বন্ধুদের সবাইকে খুব মিস করছিলাম। আজ নতুন বছরে সবার সাথে দেখা হয়েছে। সাথে নতুন বই পেয়েছি। অনুভুতিটা বলে বোঝাতে পারব না।

সরকারি পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকা তৌহিদ আরা বলেন, ২০২১ সালে বাচ্চাদের হাতে আমরা যে নতুন বই দিতে পারব এটা যেমন বাচ্চারা ভাবতে পারেনি তেমনি আমরাও ভাবতেও পারিনি। এত প্রতিকূলতা স্বত্বেও বাচ্চাদের বই দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমাদের এখানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নতুন বই বিতরণের কার্যক্রম করা হয়েছে।

রাজশাহী জেলায় ১ হাজার ৫৭টি প্রাথমিক স্কুলের প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ হয়েছে মোট ১৩ লাখ ৮৯ হাজার ৫৭৬ বই। এর মধ্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে এসে পৌঁছেছে ১৩ লাখ ৪ হাজার বই। মাধ্যমিকের সকল স্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ হয়েছে ৪৪ লাখ ১৯ হাজার ২৯৮ বই।

এর মধ্যে জেলা শিক্ষা অফিসে এসে পৌঁছেছে মাত্র ১১ লাখ ২১ হাজার ২৮৬ বই। আগামি ১২ দিনের মধ্যে স্কুলে সব বই পৌঁছে যাবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *